ইঞ্জিনিয়ারিং সংক্রান্ত পোস্ট পর্ব-০১

Published January 31, 2016 by বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি তথ্য ও সহযোগিতা কেন্দ্র

#ইঞ্জিনিয়ারিং_সংক্রান্ত_পোষ্ট পর্ব-০১:
.
সায়েন্স ব্যাকগ্রাউন্ডের অথচ ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার স্বপ্ন নেই এমন স্টুডেন্ট পাওয়া দূর্লভ। এই পোষ্টে থাকছে বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ইঞ্জিনিয়ারিং সাবজেক্টের আসন সংখ্যা, আবেদনের যোগ্যতা, মানবন্টন। আজকের আলোচনা শাবিপ্রবি নিয়ে

শাবিপ্রবি : শাবিপ্রবি বাংলাদেশের প্রথম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। ১৯৮৫ সালে প্রতিষ্ঠিত এই বিশ্ববিদ্যালয়টি ইতোমধ্যেই অর্জনের দিক থেকে অনন্য। প্রতিনিয়ত প্রোগ্রামিং ও রোবোটিক্স প্রতিযোগীতা গুলোয় শাবিপ্রবি ভালো করছে। ইঞ্জিনিয়ারিং সাবজেক্ট গুলো পড়ার জন্য অনেকের লক্ষ্য হতে পারে শাবিপ্রবি। ইঞ্জিনিয়ারিং সাবজেক্ট গুলো এবং আসন সংখ্যা নিন্মে দেওয়া হলো:

গ্রুপ – ১

১।কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং(CSE)- ৬০ টি আসন

২।ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং(EEE)- ৩৫ টি আসন

৩।মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং(MEE)- ৩৫ টি আসন

৪।ইন্ড্রাসট্রিয়াল প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং(IPE)- ৫০ টি আসন

৫।কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড পলিমার সায়েন্স(CEP)- ৫০ টি আসন

৬।সিভিল এন্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং(CEE) – ৫০ টি আসন

৭।পেট্রোলিয়াম এন্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং(PME) – ৩৫ টি আসন

৮।ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টি টেকনোলজি(FET) – ৪০ টি আসন

গ্রুপ – ৩

১।আর্কিটেকচার(ARC) – ৩০ টি আসন

এই বছরে ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের পছন্দের ক্রম: CSE>EEE>MEE>IPE>CEP>CIVIL> PME>FET

আবেদনের যোগ্যতা: মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় পৃথক ভাবে নূন্যতম জিপিএ ৩.০০ সহ মোট নূন্যতম ৭.০০ থাকতে হবে।

বিষয়ভভিত্তিক যোগ্যতা:
একটি নির্দিষ্ট বিভাগে ভর্তি হওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট বিষয়ে উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় নূন্যতম জিপিএ ৩.৫০ থাকতে হবে

CSE, EEE, IPE, ARC, MEE – পদার্থবিজ্ঞান, গণিত

CEE, PME – পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত

CEP – রসায়ন, গণিত

FET – জীববিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত

পরীক্ষার মানবন্টন(গ্রুপ ১ এর বিষয়গুলোর জন্য):

ইংরেজী-১০, পদার্থবিজ্ঞান-২০, রসায়ন-২০, গণিত-২০

মোট – ৭০

সময়: ১ ঘন্টা ৩০ মিনিট

পরীক্ষার মানবন্টন(গ্রুপ ১ ও গ্রুপ ৩ এর বিষয়গুলোর জন্য):

ইংরেজী-১০, পদার্থবিজ্ঞান-২০, রসায়ন-২০, গণিত-২০, স্থাপত্য ও ড্রয়িং বিষয়ক সাধারন জ্ঞান – ৩০

মোট – ১০০

সময় : ২ ঘন্টা

মেধাক্রম গণনা : মোট ১০০ নাম্বারে মেধাক্রম গণনা করা হবে। ৩০% আসবে জিপিএ হতে আর ৭০% আসবে ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নাম্বার হতে

জিপিএ গণনা :

নিয়মিতদের ক্ষেত্রে:
(মাধ্যমিকের জিপিএ+উচ্চমাধ্যমিকের জিপিএ)* ৩

অনিয়মিতদের ক্ষেত্রে/সেকেন্ড টাইমার দের ক্ষেত্রে:
(মাধ্যমিকের জিপিএ+উচ্চমাধ্যমিকের জিপিএ)* ২.৭

লিখছেন:

Koushik Kumar Biswas, Department Of Electrical & Electronics Engineering (EEE), Shahjalal University Of Science & Technology (SUST). Facebook: http://www.facebook.com/koushikkumar.biswas

Koushik Kumar Biswas, Department Of Electrical & Electronics Engineering (EEE), Shahjalal University Of Science & Technology (SUST).
Facebook: http://www.facebook.com/koushikkumar.biswas

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s